শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করতে হাইকোর্টের রায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতির সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ রাজবাড়ী সদরের বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অনুদানের চেক-গাছের চারা বিতরণ রাজবাড়ীতে সংসদ সদস্যদ্বয়ের অংশগ্রহণে জেলা পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ী সদরের গোদার বাজারে নদীর ভাঙন রক্ষার চলমান কাজ পরিদর্শনে এমপি সালমা চৌধুরী রুমা নতুন নিয়মে হবে বাংলাদেশ পুলিশের কনস্টেবল নিয়োগ রাজবাড়ীর আবুল হোসেন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ দুলালের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ রাজবাড়ীর আবুল হোসেন কলেজের গভর্নিং বডি’র সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষসহ ৪জনকে লিগ্যাল নোটিশ দৌলতদিয়ায় মহাসড়কে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই যুবক গ্রেফতার দৌলতদিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে আটক ১ব্যক্তির ৩০ হাজার টাকা জরিমানা

গোয়ালন্দে পদ্মার ভাঙন রোধে উপজেলা চেয়ারম্যানের ৭দিনের আলটিমেটাম

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১, ১২.৩৩ এএম
  • ২৫৫ বার পঠিত

॥মইনুল হক মৃধা॥ রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায় ভয়াবহ নদী ভাঙন রোধে আগামী ৭দিনের মধ্যে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে ঢাকা-খুলনা জাতীয় মহাসড়ক অবরোধের ঘোষণা দিয়েছেন গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মোঃ মোস্তফা মুন্সী।

গতকাল ২৩শে জুন দুপুরে উপজেলার দৌলতদিয়া ও দেবগ্রাম ইউনিয়নের নদী ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন শেষে দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট এলাকায় তিনি এ ঘোষণা প্রদান করেন।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দৌলতদিয়া ও দেবগ্রাম ইউনিয়নে নদী ভাঙন অব্যহত রয়েছে। ভাঙনে প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষের ঘর-বাড়ী বিলীন হচ্ছে। কিন্তু ভাঙন রোধে কোন কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি পানি উন্নয়ন বোর্ড। ভাঙনে দেবগ্রাম ইউনিয়ন প্রায় বিলীন হতে যাচ্ছে। প্রতিদিন শত শত মানুষ নদী ভাঙনের অভিযোগ নিয়ে আমার বাড়ীতে এবং অফিসে আসেন। আমি তাদের ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান। ভাঙন রোধে আমি তাদের জন্য কিছুই করতে পারছি না। গত কয়েক মাস ধরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে কথা বলেছি কিন্তু তারা কোন কিছুই বলতে পারছে না। সাংবাদিকদের মাধ্যমে ৭দিন সময় বেঁধে দিলাম। এই ৭দিনে পানি সম্পদমন্ত্রী এবং উপমন্ত্রী সহ এই মন্ত্রনালয়ের উদ্ধর্তন কর্মকর্তারা ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ব্যর্থ হলে আগামী ২রা জুলাই নদী ভাঙন কবলিত হাজার হাজার মানুষ নিয়ে ঢাকা-খুলনা জাতীয় মহাসড়কে অবস্থান করে সড়ক অবরোধ করবো।

উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মোঃ মোস্তফা মুন্সী বলেন, গত কয়েক মাসে আমি পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীমসহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাজবাড়ীর নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে বারবার কথা বলেছি। কিন্তু এখনো পর্যন্ত দৃশ্যত উল্লেখযোগ্য কোন কিছুই হলো না। যখন ভাঙন তীব্র হবে, তখন জরুরী ভিত্তিতে হয়তো কিছু জিও ব্যাগ ফেলা হবে। কিন্ত তাতে কোনই কাজ হয় না। তখন জিও ব্যাগ ফেলা আর টাকা জলে ফেলা একই কথা।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশে এত উন্নয়ন করেছেন, আমার বিশ্বাস তার কাছে নদী ভাঙন কবলিত মানুষের অর্তনাদ পৌছালে তিনি অবশ্যই দ্রুত ব্যবস্থাগ্রহণ করবেন। তিনিই আমাদের আশ্রয়স্থল।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শনে গেলে ভাঙন পারের শত শত মানুষ স্থানীয় এমপি, মন্ত্রী ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ সময় তারা বলেন, প্রতি বছর হাজার হাজার পরিবার নদী ভাঙনে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। অথচ পানি উন্নয়ন বোর্ড শুধু আশার কথা শুনিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে শোনা যাচ্ছে নদী ভাঙন এলাকা বাদ দিয়ে দৌলতদিয়া ফেরী ঘাটের ৬কিলোমিটার এলাকা ভাঙন রোধে কাজ করবে।

এ বিষয়ে রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদ বলেন, দৌলতদিয়া ফেরী ঘাট ও লঞ্চঘাট এলাকার বাইরে তাদের আপাতত নদী ভাঙন প্রতিরোধে তাদের কোন কাজ করার সম্ভাবনা নেই। তবে ভাঙ্গন পরিস্থিতি তীব্র হলে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় কাজ করা হবে।

নদী ভাঙন পরিদর্শন কালে গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোহম্মদ আলী মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন রনি, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক(ভারপ্রাপ্ত) মোঃ রফিকুল ইসলাম সালু, দৌলতদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ মোশাররফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক টিটু ও উপজেলা পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি রাতুল আহমেদসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved  2019 Rajbarisangbad
Theme Developed BY ThemesBazar.Com