মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৫৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করতে হাইকোর্টের রায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতির সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ রাজবাড়ী সদরের বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অনুদানের চেক-গাছের চারা বিতরণ রাজবাড়ীতে সংসদ সদস্যদ্বয়ের অংশগ্রহণে জেলা পরিষদের সভা অনুষ্ঠিত রাজবাড়ী সদরের গোদার বাজারে নদীর ভাঙন রক্ষার চলমান কাজ পরিদর্শনে এমপি সালমা চৌধুরী রুমা নতুন নিয়মে হবে বাংলাদেশ পুলিশের কনস্টেবল নিয়োগ রাজবাড়ীর আবুল হোসেন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ দুলালের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ রাজবাড়ীর আবুল হোসেন কলেজের গভর্নিং বডি’র সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষসহ ৪জনকে লিগ্যাল নোটিশ দৌলতদিয়ায় মহাসড়কে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই যুবক গ্রেফতার দৌলতদিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে আটক ১ব্যক্তির ৩০ হাজার টাকা জরিমানা

রাজবাড়ীর গোদার বাজার পদ্মা নদীর পাড় ঃ সম্ভাবনাময় একটি পর্যটন স্পট

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০২০, ১.৩১ এএম
  • ৭৭০ বার পঠিত

॥ইসতিয়াক হোসেন সোয়েব॥ রাজবাড়ী জেলায় দর্শনার্থীদের ভ্রমণের জন্য অন্যতম আকর্ষণীয় একটি স্থান হচ্ছে ‘গোদার বাজার এলাকার পদ্মা নদীর পাড়’।

রাজবাড়ী শহরের প্রাণকেন্দ্র থেকে খুব কাছে অবস্থিত হওয়ার কারণে খুব সহজেই শহরের যেকোন জায়গা থেকে যাওয়া যায় সেখানে।

শহরের ব্যস্ত কোলাহল থেকে বাঁচতে একটুখানি সতেজ বাতাসের জন্য ছুটির দিনে অনেক দর্র্শনার্থীই ভীড় জমান গোদার বাজার পদ্মার পাড়ে। শুধুমাত্র ছুটির দিনেই নয়-প্রতিদিনই সৌন্দর্য পিপাসু অনেক মানুষ ভীড় জমান ওই এলাকায়।

রাজবাড়ী জেলা প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের পক্ষ থেকে দর্শনার্থীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে বসার জন্য নদীর পাড়ে কিছু অবকাঠামো নির্মাণের ব্যবস্থা করেছিল। কিন্তু গত বছরের নদী ভাঙ্গনের সময় সেগুলোর অধিকাংশই নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। কিছু স্থাপনা বেঁচে গেলেও অযত্ন-অবহেলায় সেগুলোরও এখন বেহাল দশা। এছাড়া রাজবাড়ীবাসী অনেকদিন যাবৎ সেখানে একটি পার্ক নির্মাণের দাবী জানিয়ে আসলেও এখন পর্যন্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। প্রয়োজনীয় অবকাঠামোসহ একটি পার্কের অভাবে দর্র্শনার্থীরা পরিপূর্ণভাবে পদ্মা নদীর সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারছেন না। এছাড়া নদী পাড়ে নেই পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা। যার জন্য নিরাপত্তার অভাবে দর্র্শনার্থীরা রাতের পদ্মার সৌন্দর্যও উপভোগ করতে পারেন না। এছাড়াও নেই দর্শনার্থীদের জন্য আধুনিক কোন ওয়াশরুমের ব্যবস্থা। এসব প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণসহ গোদার বাজার পদ্মার পাড়ে যদি একটি পার্ক নির্মাণ করা যায় তাহলে সহজেই তা জেলা সদরের বাইরে প্রতিটি উপজেলাসহ জেলার বাইরের পর্যটকদেরও আকর্ষণ করবে। যা রাজবাড়ীর মতো একটি পশ্চাৎপদ জেলার অর্থনৈতিক উন্নয়নেও ভূমিকা রাখবে। কিছু কর্মসংস্থানেরও সৃষ্টি হবে, যা স্থানীয় অনেক তরুণকে বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মুক্তি দিবে।

গোদার বাজারের জনপ্রিয়তা রাজবাড়ী জেলা ছাড়িয়ে দেশের অন্যান্য জেলাগুলোতেও পৌঁছে গেছে। কিন্তু নদীর পাড়ে প্রয়োজনীয় অবকাঠামোসহ একটি পার্কের অভাবে জেলার বাইরের অনেকের ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও পরিবার ও বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ঘুরতে আসার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। যা রাজবাড়ী জেলার জন্য অনেক বড় ক্ষতি।

প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে অচিরেই গোদার বাজার পদ্মার পাড়কে সারা দেশে পর্যটন শিল্পের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অঞ্চল হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিতে পারে। দ্রুত শহর রক্ষা বাঁধের কাজ শেষ করে দর্র্শনার্থীদের কথা মাথায় রেখে প্রয়োজনীয় অবকাঠামোসহ একটি পার্ক নির্মাণ করে গোদার বাজার পদ্মা পাড়ের খ্যাতি সারা দেশে ছড়িয়ে দিয়ে এলাকাটিকে পর্যটন শিল্পের জন্য এক সম্ভাবনাময় অঞ্চলে পরিণত করতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved  2019 Rajbarisangbad
Theme Developed BY ThemesBazar.Com